Home | About Us | Porshi Team | Porshi Patrons | Event Announcement | Contact Us
হোমপেজ পুরনো সংখ্যা: সূচীপত্র  মূল রচনাবলীঃ  ||  ১০ম বর্ষ ২য় সংখ্যা জ্যৈষ্ঠ ১৪১৭ •  10th  year  2nd  issue  May - Jun  2010 পুরনো সংখ্যা
কোচ ম্যারাডোনা, ব্যাক্তি ম্যারাডোনা Download PDF version
 

বিশ্বকাপ ফুটবল ২০১০

 

 

কোচ ম্যারাডোনা, ব্যাক্তি ম্যারাডোনা

 

আশরাফুজ্জামান

 

ভালো ছাত্র ভালো শিক্ষক হলে ডিয়েগো ম্যারাডোনা অবশ্যই ভালো কোচ হতেনকি, হতেন না?

ম্যারাডোনা বাজে কোচ! এত তাড়াতাড়ি মনে হয় এই সিদ্ধান্তে পৌঁছে যাওয়া ঠিক হবে নাতাঁর সময়ে, মানে গত দেড় বছরে আর্জেন্টিনা যে ১৭টি ম্যাচ খেলেছে তার ১২টিতে জয়, হার বাকি পাঁচটিকোনো ড্র নেই! অর্থাৎ ক্যারিয়ার শুরুর দুই বছরের মধ্যে একজন কোচের সাফল্যের হার যখন ৭০-এর মতো হয় তখন কি করে তাঁকে বাজে কোচ বলা যায়!

পরিসংখ্যান বলছে, যায় নাকিন্তু তার পরও যে ম্যারাডোনা বাজে কোচই! সাফল্য দিয়েই তো আর একজন কোচকে পুরোপুরি মূল্যায়ন করা যায় নামানবিক দিকগুলোও চলে আসেতিনি মানুষ হিসেবে কেমন, তাঁর আচার-ব্যবহারটাই বা কেমন ইত্যাদি বিষয়গুলোও বিবেচ্যএই জায়গাগুলোতে ম্যারাডোনা ১০০-তে ১০ পাওয়ার মতোও নন! খেলোয়াড় ম্যারাডোনা মানুষের শ্রদ্ধার যে জায়গা নিয়ে বসে আছেন, মানুষ ম্যারাডোনা যদি তার ১০০ ভাগের এক ভাগও আদায় করে নিতে পারতেন তাহলে সহজেই তাঁর নামের পাশেও অদ্বিতীয় শব্দটি বসিয়ে দেওয়া যেততবে এটা হলে কিছুটা ক্ষতিও হয়ে যেততখন তো আর ম্যারডোনারও ম্যারাডোনীয় বৈশিষ্ট্যগুলো ফুটে উঠত নাপ্রচণ্ড জেদি, কথার কোনো লাগাম নেই, পায়ের মতো হাতও চলেআমাদের কাছে মনে হয় তাঁর ওই সব বৈশিষ্ট্যের কারণেই তিনি ম্যারাডোনা! তখন যেমন ছিলেন কোচ হওয়ার পরও ঠিক একই আছেনএখনো সাংবাদিকদের সমালোচনার জবাবে তাঁর মুখ দিয়ে বেরিয়ে আসে, তোমরা ওটা তোমাদের হাতে নিয়ে চুষো আর এটা বলার পর দুই মাসের জন্য নিষিদ্ধও হতে হয় তাঁকে

সাংবাদিকদের সঙ্গে বাজে আচরণ করে কোনো কোচ দুই মাসের জন্য নিষিদ্ধ হয়েছেনÑএমন ঘটনা গত কয়েক দশকে ঘটেছে কি না জানা নেইআর এমনটা তো হয়ইনি, দায়িত্ব নেওয়ার দুই বছর হতে না হতেই ১০০ জন খেলোয়াড় খেলিয়ে ফেলেছেন কোনো কোচ! খেলোয়াড়ি জীবনে তাঁর মধ্যে স্থিতির বড়ই অভাব ছিলএখনো সেই অভাবটা রয়ে গেছেএটা নিয়েও তাঁকে কম কথা শুনতে হচ্ছে নাকিন্তু তাঁর স্বভাবটা যে এ রকম Ñ  এ কান দিয়ে ঢুকালাম আর ও কান দিয়ে বের করলাম। জীবনে এটা যাঁরা করতে পারেন তারাই নাকি সবচেয়ে বেশি সফল হনখেলোয়াড় ম্যারডোনা হয়েছেনকোচ হিসেবে হবেন কি না সেটা বলতে আরো কিছু সময় লাগবেতবে দলটাকে নিয়ে এমন পরীক্ষা-নিরীক্ষার প্রাথমিক একটা ফল অবশ্য পেয়ে যায় আর্জেন্টিনা বিশ্বকাপের আগেইএটা করতে করতে কাদের দলে রাখবেন আর কাদের রাখবেন না, সে ব্যাপারে একটা ধারণা ম্যারাডোনা কিন্তু ঠিকই পেয়ে যান

কোচ হওয়ার পর আরেকটা কাজ করেছেন ম্যারাডোনাঅন্য কেউ হলে কখনো এমনটা করতেন নাসবাই চাইতেন যেসব খেলোয়াড় ইউরোপিয়ান লিগে খেলে তাদের দিয়েই জাতীয় দল বানাতেকিন্তু ম্যারাডোনা চিন্তা করে দেখলেন, ইউরোপে যারা খেলে তাদের একসঙ্গে বেশি সময় পাওয়া যায় নাতাই দলে সমন্বয়ের বড় অভাব দেখা দেয়সে কারণেই প্রথা ভেঙে আর্জেন্টাইন লিগে যারা খেলছে তাদেরই বুকে টেনে নিলেন তিনিআর সেটা হয়ে গেল দারুণ এক সিদ্ধান্তঘরোয়া লিগে খেলা মারিও বোলাত্তিকে উরুগুয়ের বিপক্ষে নামিয়েছিলেন বদলি হিসেবেআর্জেন্টিনার জন্য বিশ্বকাপ বাছাই পর্বের সেই ম্যাচটি এমনই গুরুত্বপূর্ণ ছিল, হারলেই শেষ হয়ে যাবে বিশ্বকাপে খেলার স্বপ্নসেই ম্যাচের ৮৪ মিনিটে গোল করে দলের জন্য দক্ষিণ আফ্রিকার টিকিট নিশ্চিত করেন তরুণ এই মিডফিল্ডারম্যারাডোনার দলে জায়গা পাওয়ার আগে কে-ই বা চিনত তাঁকে! বোলাত্তি এখন অবশ্য ইউরোপেই খেলছেন ইতালির ফিওরেন্তিনার হয়ে

মার্টিন পালেরমোর কথাও বলা যেতে পারেসেই ১০ বছর আগে সর্বশেষ আর্জেন্টিনার হয়ে খেলেছেনসবাই যখন এই ফরোয়ার্ডের নাম প্রায় ভুলেই গিয়েছিলেন তখন তাঁকে আবার আলোয় নিয়ে আসেন ম্যারাডোনাঅতিরিক্ত সময়ে পেরুর বিপক্ষে বাছাই পর্বে জয়সূচক গোলটি আসে ৩৬ বছর বয়সী পালেরমোর পা থেকেইবাছাই পর্ব পেরুতে শেষ ওই দুটি ম্যাচ জিততেই হবেÑএমন বাস্তবতায় ম্যারাডোনার মুখ রাখলেন বোলাত্তি ও পালেরমোঅথচ দায়িত্ব নেওয়ার পর বাছাই পর্বের তিন ম্যাচের মধ্যে দুটিতে হেরে যাওয়ায় যায় যায় রব উঠেছিলযাঁরা তাঁকে আর্জেন্টিনার কোচ বানিয়েছেন সেই আর্জেন্টাইন ফুটবল অ্যাসোসিয়েশনের লোকজন পর্যন্ত বলতে শুরু করেছিলেন, আর্জেন্টিনা যদি বিশ্বকাপে যেতে না পারে তাহলে এর সব দায় ম্যারাডোনাকেই নিতে হবেম্যারাডোনার কাটা ঘায়ে লবণদিতে শুরু করেছিলেন পেলেওতবে ব্রাজিলিয়ান ফুটবল সম্রাট একটু অন্যভাবে কটাক্ষ করেছিলেনপেলে যতটা না দোষ দিয়েছিলেন ম্যারাডোনাকে, তার চেয়ে বেশি দিয়েছিলেন যাঁরা তাঁকে কোচ বানিয়েছেনপেলে অন্যভাবে বললে কি হবে অনেকে তো তখন সরাসরিই মেতেছিলেন কোচ ম্যারাডোনার সমালোচনায়

ম্যারাডোনার দেশি খেলোয়াড়দের দিকে ঝুঁকে পড়ার আরেকটি কারণ আছেদেখা গেছে, ইউরোপে যাঁরা খেলেন, গোলের পর গোল করেন তাঁরা জাতীয় দলে ফিরে কিছুই করতে পারেন নামিডফিল্ডার সেবাস্তিয়ান ভেরন এবং তরুণ সেন্টার ব্যাক নিকোলাস ওটামেন্ডিকে দলে নেওয়ার কারণ কিন্তু এটাইদুজনই তাদের খেলা দিয়ে মন জয় করে নিয়েছেন ম্যারাডোনার

এখন দেখার বিষয় মেসি, হিগুয়াইন, তেভেজ, মিলিতো, অ্যাগুয়েরোরা কী করেনতাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ, ক্লাবের মতো আর্জেন্টিনার জন্য তাঁরা নিজেদের উজাড় করে দেন নাএই অভিযোগ হয়তো ঠিক নয়হয়তো তাঁদের পাশে যে ম্যারাডোনার মতো একজন মানুষ আছেন, সেটা তাঁরা বুঝতে পারেন না, তাঁর উপস্থিতি তাদের সেভাবে নাড়া দেয় নাবিশ্বকাপে ম্যারাডোনা যদি তাঁর স্ট্রাইকারদের মধ্যে - ম্যারাডোনা আছেন - এই বোধটা জাগ্রত করতে পারেন তাহলে বিশ্বকাপ ট্রফিটা হয়তো আর্জেন্টিনাতেই যাবে

ম্যারাডোনার পর আর্জেন্টিনায় কখনো মেসির মতো করে জ্বলে ওঠেনি আর কোনো নক্ষত্রএবার পাশাপাশি ম্যারাডোনা-মেছিআর তাই এই বিশ্বকাপই হয়তো দুটি প্রশ্নের উত্তর দিয়ে দেবে?

এক. কে সেরা, মেছি না ম্যারাডোনা?

দুই. কোচ ম্যারাডোনাও কি খেলোয়াড় ম্যারাডোনার মতো যোগ্য?

 

__________________________

ক্রীড়া সম্পাদক, দৈনিক কালের কন্ঠ।

ঢাকা থেকে

 

 

মন্তব্য:
এ সপ্তাহের জরীপ

প্রেসিডেন্ট ওবামা ঠিকমত দেশ চালা্চ্ছেন।

 
Code of Conduct | Advertisement Policy | Press Release | Hard Copy Archive
© Copyright 2001 Porshi. All rights reserved.