Home | About Us | Porshi Team | Porshi Patrons | Event Announcement | Contact Us
হোমপেজ পুরনো সংখ্যা: সূচীপত্র  সাম্প্রতিক  ||  ৯ম বর্ষ ৮ম সংখ্যা অগ্রহায়ণ ১৪১৬ •  9th  year  8th  issue  Nov-Dec  2009 পুরনো সংখ্যা
পররাষ্ট্রমন্ত্রীর কানাডা সফর এবং দেশের ভাবমূর্তি Download PDF version
 

সাম্প্রতিক

 

পররাষ্ট্রমন্ত্রীর কানাডা সফর এবং দেশের ভাবমূর্তি

 

সাইফুল্লাহ মাহমুদ দুলাল

 

            গত জুলাইয়ে নিউইয়র্কে মুক্তধারা আয়োজিত আন্তর্জাতিক বাংলা উৎসব এবং বইমেলা উদ্বোধনীর মধ্যমণি ছিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডা. (ডক্টর নয়) দীপু মনি১৯তম উৎসবে ১৮টি মঙ্গল প্রদীপ জ্বালানোর জন্য 18জনকে মঞ্চে আমন্ত্রণ জানানো হয়তাঁদের মধ্যে আমিও একজন ছিলামমন্ত্রীর মনোরম বক্তৃতা এবং শিল্পী সাহিত্যিকদের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ দেখে খুব মুগ্ধ হলামতারপর আগস্টে দেশে গিয়ে হঠাৎ একদিন সংবাদপত্রে দেখলাম- এক জুতোর দোকানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী দীপু মনি ফিতা কেটে উদ্বোধন করতে গেলেনপ্রশ্ন জাগলো- দেশের একজন পররাষ্ট্রমন্ত্রীর কী আর কোনো কাজকর্ম নেই? তিনি গেলেন জুতোর ফিতা কাটতে! তাঁর নাম ব্যবহার করে চাঁদপুরে ৫০ লাখ টাকার ইলিশ নিয়ে গেল আওয়ামী লীগ নেতারাএ ধরনের কর্মকাণ্ডে তাঁর প্রতি পূর্বের মুগ্ধতাটা কিছুটা হ্রাস পেলো

     ইতোপূর্বে আরেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী প্রয়াত আবদুস সামাদ আজাদের কথা মনে পড়লোশেষ বয়সে বিয়ে করেছিলেনযদিও সে-টা তাঁর ব্যক্তিগত ব্যাপারতবুও যারা পাবলিক এসেট, তাঁদের প্রভাব পড়ে সমাজেআরেক প্রয়াত মন্ত্রী কর্নেল আকবর হোসেন বিদেশে যাত্রাকালে বিমান বন্দরেগার্ল ফ্রেন্ডসহ আটকা পড়েনপরে তিনি বাদশাহ আকবর হয়ে ভদ্রমহিলাকে বিবাহ করে রাণীর মর্যাদা দেনএবং সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বলেন, খারাপ কিছু করার চেয়ে শাদী করা ভালোচমৎকার জবাব

     বারডেমে অরূপ রতন চৌধুরীর দন্ত বিষয়ক একটি চটি বইয়ের প্রকাশনা উৎসবে প্রধান অতিথি হয়ে এসেছিলেন তৎকালীন পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবদুস সামাদ আজাদআমি ছিলাম প্রকাশনা উৎসবের বিশেষ বক্তাদুঃখিত মন্ত্রীর পাশে আমি উপবিষ্টঅনুষ্ঠানের এক পর্যায়ে সামাদ আজাদ ঝিমুচ্ছেনঝিমুতে-ঝিমুতে হঠাৎ তাঁর মাথার টুপি খুলে পড়লো আমার উপরদর্শক-শ্রোতারা মুখ চেপে হাসতে শুরু করলেন

মন্ত্রীরা কেনো যে হাসিরপাত্র হন, তা বোধগম্য নয়অতীতের কথা থাকবর্তমান প্রসঙ্গে আসিদীপু মনি অত্যন্ত সৌভাগ্যবতী প্রথম নারী পররাষ্ট্রমন্ত্রী এবং প্রথম ধাপেই পূর্ণমন্ত্রীএটি ছিল প্রধানমন্ত্রী শেষ হাসিনার অন্যতম চমককমাস আগে মন্ত্রীসভার রদবদলে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রি ড. (ডাক্তার নন) হাসান মাহমুদকে বন-জঙ্গলে সরিয়ে দেয়া হয়এখন দীপু মনি একাই অল ইন অল

     মাঝখানে বেশ কিছু বিষয় নিয়ে তিনি আলোচিত হনএবার আলোচিত হলেন কানাডায় ঝটিকা সফরে এসেতাঁর অকূটনৈতিক সুলভ আচরণ দেশে বিদেশে প্রশ্ন তুলেছে

     ইতোপূর্বে কমাস আগেও তৎকালীন পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী হাসান মাহমুদ কানাডায় এসেছিলেনপ্রধানমন্ত্রী শেষ হাসিনার কানাডা সফরের পূর্ব প্রস্তুতি নেয়ার জন্যতখন টরন্টোতে প্রধানমন্ত্রীর অস্থায়ী কার্যালয়ের জন্য অফিসও ভাড়া নেয়া হয়েছিলকানাডা জুড়ে সাজসাজ রব উঠেছিলকিন্তু শেষ পর্যন্ত প্রধানমন্ত্রীর সে সফল বাতিল হয়ে যায়তখন প্রতিমন্ত্রী হাসান মাহমুদের সফর গুরুত্বপূর্ণ ছিলআর এবার পূর্ণমন্ত্রীর সফল হলো গুরুত্বহীনকেনো?

     বাংলাদেশের পররাষ্ট্রমন্ত্রী দীপু মনি ১ অক্টোবর রাতে কয়েক ঘণ্টার ঝটিকা সফরে কানাডায় আসেন, ব্যক্তিগত সফরেপ্রটোকল ছাড়া মন্ত্রীর সফর নিয়ে বিভিন্ন মহলে নেতিবাচক বিতর্ক শুরু হয়েছে

প্রথমত: তিনি সরকারের একজন পররাষ্ট্রমন্ত্রী হয়েও কানাডা সরকারে কোনো পর্যায়ে কারো সাথেই দেখা সাক্ষাৎ করেন নিএমনকী টেলিফোনেও যোগাযোগ করেন নি

দ্বিতীয়ত: যাঁদের সাথে দেখা করেছেন, ফোনে কথা বলেছেন এবং নৈশ ভোজে যোগ দিয়েছে, তারা সবাই বিরোধী দল অর্থাৎ লিবারেল পার্টির ডেপুটি প্রিমিয়ার, এমপি, এমপিপি, নেতৃবৃন্দ

কানাডার সরকারি দলের সাথে যখন বিরোধী দলের সরকার পতন আন্দোলনে বিরোধ চলছে, তখন এ ধরনের অকূটনৈতিক কর্মকাণ্ড দুদেশের জন্যই বিব্রতকর নয় কী?

তৃতীয়ত: বিতর্কিত রাষ্ট্রদূত এয়াকুব আলী সাহেব কোনো সরকারি দলের মন্ত্রী বা সরকারের সাথে যোগাযোগ করে একটা সুপরিকল্পিত কূটনৈতিক পর্যায়ে অনুষ্ঠানের ব্যবস্থা না করে, ব্যক্তিগতভাবে ভোজসভার আয়োজন করলেনতাই রাষ্ট্রদূতের দায়িত্ব ও দক্ষতা নিয়েও প্রশ্ন তুলেছে অভিজ্ঞমহল

চতুর্থত: পররাষ্ট্রমন্ত্রীর এই সফর এতোই গোপন রাখা হলো যে, তাঁর দল আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দও অবগত ননফলে দলের ত্যাগী নেতাকর্মীরা ক্ষুব্ধ হয়েছেন

পঞ্চমত: মন্ত্রীর সফরের খবর প্রথমে কোনো মিডিয়াকেও জানানো হয় নিতিনি টরন্টো ত্যাগ করার পর দূতাবাস নয়, তৃতীয় পক্ষ অর্থাৎ ডেপুটি প্রিমিয়ার স্মিথার ম্যানের ব্যক্তিগত সহকারী এই সচিত্র সংবাদটি ই-মেইলে বাংলা মিডিয়াকে অবগত করেনএটাও কোনো কূটনৈতিক রীতিনীতির মধ্যে পড়ে না

ফকীর আবদুর রাজ্জাক সেজন্যই লিখেছেন, কানাডা বাংলাদেশের অন্যতম ভাল বন্ধুরাষ্ট্রকানাডা কখনো বিতর্কে জড়ায়নি, কখনো কোন চাপও দেয়নি। ... দীপু মনি নিশ্চই কচিকাচার আসরের সদস্য নন,... তবু কেন তিনি কানাডায় গিয়ে লুকোচুরি!

     বাংলাদেশ ছোট দেশ হতে পারে, কিন্তু মর্যাদার দিক দিয়ে গৌরবোজ্জ্বল স্থানে অবস্থান করছেএই তো মাত্র কদিন আগেই প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা জাতিসংঘে বাংলায় ভাষণ দিয়ে জাতিসংঘের দাপ্তরিক ভাষা হিসেবে বাংলাকে চালু করার প্রস্তাব দেনআশা করি, এই ক্ষুদ্র উদাহরণটি এখানে যথেষ্ট দৃষ্টান্তের স্বাক্ষর বহন করে আর আমাদের  পররাষ্ট্র মন্ত্রী বহির্বিশ্বে দেশের মর্যাদা এবং ভাবমূর্তিকে ক্ষুণ্ন করলেন

saifullahdulal@gmail.com

 

মন্তব্য:
Kamal   December 9, 2009
Thanks vi for this news. Its really shame for Bangladeshi people
Kamal   December 9, 2009
Thanks vi for this news. Its really shame for Bangladeshi people
shaugat Ali sagor   November 20, 2009
This ia a good article. I liked it. Thanks Dulal Bhai
এ সপ্তাহের জরীপ

প্রেসিডেন্ট ওবামা ঠিকমত দেশ চালা্চ্ছেন।

 
Code of Conduct | Advertisement Policy | Press Release | Hard Copy Archive
© Copyright 2001 Porshi. All rights reserved.