Home | About Us | Porshi Team | Porshi Patrons | Event Announcement | Contact Us
হোমপেজ পুরনো সংখ্যা: সূচীপত্র  প্রযুক্তি বন্ধন  ||  ৯ম বর্ষ ৮ম সংখ্যা অগ্রহায়ণ ১৪১৬ •  9th  year  8th  issue  Nov-Dec  2009 পুরনো সংখ্যা
প্রযুক্তির টুকরো খবর Download PDF version
 

প্রযুক্তি বন্ধন

 

প্রযুক্তির টুকরো খবর

মোহাম্মদ কাওছার উদ্দীন

মানিকগঞ্জে ডি.নেটের কম্পিউটার সাক্ষরতা কর্মসূচী

            মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার গড়পাড়া বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ে চলছে ডেভেলপমেন্ট রিসার্চ নেটওয়ার্ক (ডি.নেট) এর কম্পিউটার ¯^v¶iZv কর্মসূচী গত ১১ অক্টোবর গিয়ে দেখা গেলো কম্পিউটার নিয়ে শিক্ষার্থীদেও মধ্যে ব্যাপক আগ্রহ গড়পাড়া বহুমুখী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক বাবু মেঘলাল মন্ডল জানালেন স্কুলে কম্পিউটার বিষয় না থাকলেও ডি.নেটের উদ্যোগে কম্পিউটার প্রশিক্ষণে শিক্ষার্থীরা প্রচন্ড আগ্রহী ২০০৮ সালের এপ্রিল থেকে এখানে কম্পিউটার প্রশিক্ষণ কার্যক্রম শুরু হয়েছে প্রশিক্ষণ মডিউলের মধ্যে রয়েছে মাইক্রোসফট ওয়ার্ড, এক্সল, পেইন্ট, ইমেইল ইন্টারনেট তিনি জানান, প্রতিব্যাচে জন করে পর্যন্ত ১৮টি ব্যাচ তাদের প্রশিক্ষণ শেষ করেছে স্কুল শুরুর পূর্বে এবং স্কুল ছুটির পর দুই ব্যাচে প্রশিক্ষণ কার্যক্রম চলে শিক্ষার্থীদেরকে এই প্রশিক্ষণের জন্য ১৫০ টাকা করে দিতে হয়, যা দিয়ে বিদ্যুৎ বিলসহ অন্যান্য ব্যবস্থাপনা খরচ মেটানোর চেষ্টা করা হয়

            স্কুলের শিক্ষক মোঃ মনসুর উদ্দীন রওশন আরা শিক্ষার্থীদের এই কম্পিউটার শিক্ষা প্রদান করেন তাঁরা জানালেন, শিক্ষার্থীরা কম্পিউটার শিক্ষার বিষয়ে খুবই আগ্রহী তবে প্রশিক্ষণ কোর্সে ফটোশপের মতো কিছু গ্রাফিক্স সফটওয়্যার অন্তর্ভুক্ত করা গেলে, প্রশিক্ষণটি শিক্ষার্থীদের আরো বেশি কাজে লাগবে তাঁরা জানান, স্কুলের শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি ভবিষ্যতে এলাকার আগ্রহী শিক্ষার্থীদেরও প্রশিক্ষণ দেয়ার চিন্তা-ভাবনা আছে স্কুল কর্তৃপক্ষের স্কুলের সপ্তম শ্রেণীর ছাত্রী ছালমিন খান রূপা বললেন, প্রশিক্ষণের ফলে পাঠ্যপুস্তকের পাশাপাশি রকম একটি প্রশিক্ষণ আমরা পাচ্ছি, যা আমাদের ভবিষ্যতে অনেক কাজে লাগবে

            ডি.নেটের সহকারী পরিচালক জাহিদ আল মাহাদি এ প্রসঙ্গে বলেন, বাংলাদেশের সুবিধা-বঞ্চিত শিশু-কিশোর ও তরুণ সম্প্রদায়কে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তির বিপুল সম্ভাবনার সাথে পরিচয় করিয়ে দেয়ার লক্ষ্যে ২০০৪ সালে কম্পিউটার সাক্ষরতা কর্মসূচী সূচিত হয়কম্পিউটার সাক্ষরতা কর্মসূচীর উদ্যোগ ও পরিকল্পনা নিউজার্সি অধিবাসী কয়েকজন বাংলাদেশীরতাদের উদ্যোগে ভলেন্টারি এসোসিয়েশন ফর বাংলাদেশ (ভ্যাব) ১৯৯৮ সাল থেকে বাংলাদেশে নিম্নবিত্ত ছাত্রছাত্রীদের শিক্ষার সুযোগ করে দেয়ার জন্য বৃত্তিপ্রদান এবং বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ল্যাবরেটরী ও লাইব্রেরী উন্নয়নের জন্য কাজ করে আসছেমূল উদ্দেশ্যের একমুখীনতা লক্ষ্য করে উদ্যেক্তারা তাই নিউজার্সিতে একটি শাখা গড়ে তুললেনভ্যাব-নিউজার্সির উদ্দেশ্য বাংলাদেশের গ্রামাঞ্চলে সুবিধাবঞ্চিত ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে কম্পিউটার শিক্ষা ও কম্পিউটার ব্যবহারের প্রসার ঘটানবাংলাদেশে কর্মসূচী বাস্তবায়নের জন্য সহযোগী সংগঠন হিসেবে নেয়া হয় ডি.নেট কে

            উল্লেখ্য, কম্পিউটার সাক্ষরতা কর্মসূচী একটি ত্রিমুখী উদ্যোগপ্রবাসী বাংলাদেশীরা আর্থিক সহায়তা প্রদান করেন, ডি.নেট আংশিক আর্থিক অবদানের পাশাপাশি পাঠ্যক্রম তৈরী ও হালনাগাদকরণ, শিক্ষক প্রশিক্ষণ, কম্পিউটার ল্যাব স্থাপন ও রক্ষণাবেক্ষণ করে, স্কুল কর্তৃপক্ষ ল্যাব তৈরীর জায়গা, আসবাবপত্র, বিদ্যুত সংযোগ ও বিল প্রদান করেএই পদ্ধতিতে এখন পর্যন্ত ১০৭টি কম্পিউটার শিক্ষাকেন্দ্র স্থাপিত হয়েছেএখন পর্যন্ত কম্পিউটার ¯^v¶iZv কেন্দ্র থেকে প্রায় ২০,০০০ শিক্ষার্থী সাফল্যজনকভাবে ৩২-৪০ ঘন্টার কোর্স সম্পন্ন করেছে এবং ২৫২ শিক্ষক/শিক্ষিকাকে প্রশিক্ষণ প্রদাণ করা হয়েছেপ্রবাসী বাংলাদেশীদের পাশাপাশি দেশীয় প্রতিষ্ঠান ও ব্যক্তিও এই কর্মসূচী সমপ্রসারণে ভূমিকা রাখছেব্যাংক এশিয়া, হোসেন ট্রাস্ট, আই.কে ফাউন্ডেশন, ইসলামাবাদ বালিকা এতিমখান এবং ব্যক্তি পর্যায়ে অনেকেই কেন্দ্র স্থাপনে সহায়তা করেছেএছাড়া সিমেন্স বাংলাদেশ কম্পিউটার দিয়েছে 

            জাহিদ আল মাহাদি জানান, কম্পিউটার ¯^v¶iZv কর্মসূচীকে (সিএলপি) দ্রুত সমপ্রসারণের লক্ষ্যে ডি.নেট আগামী বছরের জানূয়ারীতে একটি সি.এল.পি তহবিল উন্নয়ন অনুষ্ঠানের আয়োজন করতে যাচ্ছেযার মাধ্যমে বাংলাদেশের বিভিন্ন সংস্থা এবং ব্যক্তি আর্থিক সহযোগিতা প্রদান করে এই আন্দোলনকে গতিশীল এবং কার্যকর করে ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ার পথ সুগম করতে পারেবাংলাদেশের বিভিন্ন সংস্থা এবং ব্যক্তিকে এ অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ জানানো হবে বলেও তিনি জানান

হবিগঞ্জের হাওর অঞ্চলের একটি স্কুলে বিসিএস ডিজিটাল এডুকেশন প্রকল্পের কম্পিউটার বিতরণ

            বাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতি (বিসিএস)-এর সভাপতি মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়তে হলে একটি কম্পিউটার শিক্ষিত প্রজন্ম তৈরি করতে হবেশুধু মুখের কথায় ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়ে উঠবে না বা কাঙ্খিত পরিবর্তন আনা যাবে নাএটি করতে হলে প্রতিটি শিশুর হাতে, প্রতিটি স্কুলে ও ক্লাসে কম্পিউটার পৌঁছে দিতে হবেএ কাজে এগিয়ে আসার জন্য তিনি সকলের প্রতি আহ্বান জানান দেশের উত্তর-পূর্ব হবিগঞ্জ জেলার প্রত্যন্ত হাওর অঞ্চলের বিরাট গ্রামস্থ আজমিরীগঞ্জ এবিসি উচ্চ বিদ্যালয়ে গত ৫ অক্টোবর বিসিএস ডিজিটাল এডুকেশন প্রকল্পের পক্ষ থেকে ইন্টারনেট সংযোগ ও ডিজিটাল শিক্ষাসহ কম্পিউটার বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন

            এবিসি উচ্চ বিদ্যালয় ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য মনীন্দ্র কান্তি রায়ের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আজমিরীগঞ্জ উপজেলার রাজনৈতিক ও সামাজিক ব্যক্তিত্বসহ বিদ্যালয়ের কয়েকজন শিক্ষক বক্তব্য রাখেনবক্তারা বিসিএসর এ উদ্যোগকে অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, স্কুলের ব্যবস্থাপনা কর্তৃপক্ষ এই যন্ত্রটিকে কেবল শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের শিক্ষার কাজে লাগাবেন না, সাধারণ মানুষের কাজে লাগানোর জন্য এর মাধ্যমে একটি গণ তথ্যকেন্দ্র গড়ে তোলা হবে

            উল্লেখ্য, এ বছর মার্চ মাসে বঙ্গবন্ধু ইন্টারন্যাশনাল কনফারেন্স সেন্টারে অনুষ্ঠিত বিসিএস ডিজিটাল এক্সপো ২০০৯-এ শিক্ষায় তথ্যপ্রযুক্তি: ডিজিটাল বাংলাদেশের ভিত্তি শীর্ষক গোলটেবিল বৈঠকে শিক্ষায় তথ্য-প্রযুক্তির বিকাশার্থে ইনডেক্স আইটি লিমিটেড কর্তৃপক্ষ ৫০টি কম্পিউটার অনুদানের ঘোষণা প্রদান করেনএতে অনুপ্রাণিত হয়ে বিসিএস ডিজিটাল স্কুল প্রকল্প হাতে নেয়া হয়এ প্রকল্পের আওতায় প্রথম পর্যায়ে ৫০টি বিদ্যালয়ে এক সেট পূর্ণাঙ্গ কম্পিউটার, ইন্টারনেট সংযোগ, ডিজিটাল শিক্ষা উপকরন প্রদান করা হচ্ছেবাংলাদেশ কম্পিউটার সমিতির আহ্বানে সাড়া দিয়ে প্রকল্পে এ পর্যন্ত যেসব প্রতিষ্ঠান সহায়তা প্রদান করেছে তাদের মধ্যে রয়েছে ইনডেক্স আইটি লিঃ, স্মার্ট টেকনোলজিস (বিডি) লিঃ, গ্রামীণফোন লিমিটেড, ওরিয়েন্ট কম্পিউটারস, এক্সেল টেকনোলজিস লিঃ, ইপসিলন সিস্টেমস এন্ড সলিউশসন লিঃ, বিডি জবস ডট কম, বেটা বাংলাদেশ লিঃ, ইউনিক বিজনেস সিস্টেমস, বিজয় ডিজিটাল, বাংলাদেশ ওপেন সোর্স নেটওয়ার্ক, দি কম্পিউটারস লিঃ, কালারস অব বাংলাদেশ, টেকনো বিডি প্রভৃতি

তথ্যপ্রযুক্তি ক্ষেত্রে করণীয় বিষয়ে নকিয়া ও বিইআই-এর গোলটেবিল বৈঠক

            নকিয়া বাংলাদেশ এন্টারপ্রাইজ ইন্সটিটিউট (বিইআই) যৌথভাবে বাংলাদেশে তথ্যপ্রযুক্তি নির্ভর সমাজ গঠনের ক্ষেত্রে সম্ভাব্য কাজের ক্ষেত্র প্রসঙ্গ বিষয়ে আজ স্থানীয় একটি হোটেলে এক গোলটেবিল বৈঠকের আয়োজন করে

            তথ্যপ্রযুক্তি নির্ভর সমাজ বিনির্মাণে বাংলাদেশের অভিযাত্রা শীর্ষক এই আলোচনা সভায় পরিসংখ্যান তথ্য-উপাত্তনির্ভর বিভিন্ন গঠনমূলক পরামর্শ প্রস্তাবনা উঠে আসে বুদ্ধিজীবি, শিক্ষাবিদ, সরকারের গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তি, বিশেষজ্ঞ তথ্যপ্রযুক্তি শিল্পখাত সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিবর্গ গোলটেবিল বৈঠকে আলোচক অতিথি হিসেবে অংশগ্রহণ করেন 

            গোলটেবিল বৈঠকে ডিজিটাল বাংলাদেশ গঠনের লক্ষ্যে তথ্য নির্ভর সমাজ বিনির্মাণে মোবাইল ফোনের ব্যবহার নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ মতামত দেন বক্তারা তারা বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ বাস্তবায়নের বিষয়ে প্রচুর আলোচনা হচ্ছে কিন্তু সত্য হচ্ছে যে, এদেশের অনেক মানুষ এখনও বুঝে উঠতে পারছেন না যে তাদের হাতে ইতিমধ্যেই মোবাইলের মাধ্যমে তথ্যপ্রযুক্তির শক্তি সামর্থ্য পৌঁছে গেছে সময় আলোচকরা পরামর্শ দেন, মোবাইল ফোনের প্রযুক্তিগত সামর্থ্য সম্পর্কে দেশের লক্ষ লক্ষ মোবাইল ফোন ব্যবহারকারীদের যদি সঠিকভাবে অবগত করে তাদেরকে ব্যাপারে উদ্যোগী অংশগ্রহণকারী হিসেবে গড়ে তোলা যায;  তবে তা ডিজিটাল বাংলাদেশ গঠনের ¯^cœ বাস্তবায়নে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখবে

            তথ্যমন্ত্রী আবুল কালাম আজাদ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গোলটেবিল বৈঠকের সঞ্চালকের দায়িত্ব পালন করেন বিইআই-এর প্রেসিডেন্ট ফারুক সোবহান তিনি একইসঙ্গে উদ্বোধনী বক্তব্যও রাখেন ব্র্যাক ইউনিভার্সিটির উপাচার্য অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরী মূলপ্রবন্ধ পাঠ করেন নকিয়া ইমার্জিং এশিয়ার জেনারেল ম্যানেজার প্রেম চাঁদ অনুষ্ঠানে তথ্যপ্রযুক্তি সংক্রান্ত একটি বিশেষ প্রতিবেদন উপস্থাপনা করেন উপস্থাপনা শেষে উপস্থিত গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিবর্গ উন্মুক্ত আলোচনায় অংশ নেন 

            গোল টেবিল বৈঠকের আলোচক প্যানেলে ছিলেন বাংলাদেশ এসোসিয়েশন অফ সফটওয়ার এন্ড ইনফরমেশন সার্ভিসেস (বেসিস)-এর প্রেসিডেন্ট হাবিবুল্লাহ এন করিম, বাংলাদেশে জাতিসংঘ উন্নয়ন তহবিলের (ইউএনডিপি) তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক পলিসি অ্যাডভাইজর আনির চৌধুরী, দোহাটেক-এর চেয়ারম্যান লুনা শামসুদ্দোহা, এসোসিয়েশন অফ মোবাইল টেলিকম অপারেটরস অফ বাংলাদেশ- এর প্রেসিডেন্ট বাংলালিংকের গভর্নমেন্ট এন্ড রেগুলেটরি এফেয়ার্সের পরিচালক জাকিউল ইসলাম এবং প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের একসেস টু ইনফরমেশন প্রোগ্রামের প্রাক্তন পরামর্শক মুনির হাসান   

            মূল প্রবন্ধ উপস্থাপনায় অধ্যাপক জামিলুর রেজা চৌধুরী তথ্যপ্রযুক্তি নির্ভর সমাজ বিনির্মাণের প্রয়োজনীয়তা এবং এপথে অগ্রগতি অর্জন সম্পর্কে বিভিন্ন তথ্য পরিসংখ্যান পেশ করে তার মতামত ব্যক্ত করেন তথ্যমন্ত্রী আবুল কালাম আজাদ তার বক্তব্যে বলেন, পাবলিক সেক্টরের নানা ক্ষেত্রে টেলিকম ইন্ডাষ্ট্রি অপারেটররা অনন্য দক্ষতা দেখাচ্ছে এসব খাতের মধ্যে রয়েছে: নীতি সংস্কার, নির্বিঘ্ন আর্থিক ব্যবস্থাপনা, রেকর্ড সংরক্ষণে আধুনকায়ন তথ্য সংরক্ষণ, নীতি নির্ধারণ তিনি বলেন, তৃণমূল পর্যায়ে তথ্য সরবরাহ নিশ্চিত এখন আর কোন সুযোগ বা বিলাসিতা নয়, এটি প্রয়োজনীয়তা একটি শক্তিশালী টেলিকমিউনিকেশন বাজার অবকাঠামো ছাড়া বাংলাদেশের মানুষের জন্য পর্যাপ্ত তথ্য সংগ্রহ সত্যিকার অর্থেই কঠিন হবে 

            গোলটেবিল বৈঠক থেকে আলোচিত নানা জরুরী বিষয় প্রসঙ্গ সাধারন মানুষের মধ্যে ইন্টারনেটের শক্তি মোবাইল ইন্টারনেট সম্পর্কে স্পষ্ট ধারনা দেবে বলে আয়োজকরা আশা প্রকাশ করেন এছাড়া এই আলোচনা থেকে দেশের নেতৃবর্গ, নীতিনির্ধারকবৃন্দ সাধারন মানুষও নিজেদের করণীয় সম্পর্কে নতুন করে ভাববেন বলেও তারা আশা করেন

বাংলাদেশের শিক্ষার্থীরাও সুযোগ পাবে আন্তর্জাতিক ওডিএফ অলিম্পিয়াডে

            দক্ষ জনশক্তি তৈরীর প্রধান হাতিয়ার তথ্যপ্রযুক্তির ব্যবহার বৃদ্ধিআর এটি শুরু করতে হবে স্কুল থেকেইআমাদের মত উন্নয়নশীল দেশের জন্য তথ্যপ্রযুক্তি তথা কম্পিউটার ব্যবহার হতে হবে সহজলভ্য ও নিরাপদস্কুলের শিক্ষার্থীদের গুচ্ছ সফটওয়্যার ব্যবহার ও মুক্ত ডকুমেন্ট ফরমেট ব্যবহার বৃদ্ধির জন্য বিশ্বের বিভিন্ন কম্পিউটার ও সফটওয়্যার নির্মাতা প্রতিষ্ঠানের সংগঠন ওডিএফ এলায়েন্স প্রতি বছর ওডিএফ অলিম্পিয়াডের আয়োজন করে থাকেওডিএফ বা ওপেন ডকুমেন্ট ফরম্যাট হলো কম্পিউটারে ডকুমেন্ট, উপস্থাপনা ইত্যাদি ফাইল সংরক্ষণে আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত ফরম্যাট যা ইতিমধ্যে আইএসও-র মাধ্যমে গৃহীত হয়েছেওডিএফ অলিম্পিয়াডে শিক্ষার্থীদের এই ফরম্যাটে উপস্থাপনা তৈরি করতে হয়এ বছরই প্রথমবারের মত বাংলাদেশের শিক্ষার্থীরা এ অলিম্পিয়াড অংশগ্রহণের সুযোগ পাবেবাংলাদেশ ওপেনসোর্স নেটওয়ার্ক (বিডিওএসএন) দেশে অলিম্পিয়াডের কার্যক্রম সমন্বয় করছেমোট চারটি ক্যাটাগরিতে এ অলিম্পিয়াড হয়ে থাকে২০০৯ সালের ক্যাটাগরি অনুসারে উপস্থাপনার বিষয়বস্তু হলো - প্রথম থেকে পঞ্চম শ্রেনীর জন্য : কেন আমি ইন্টারনেট ব্যবহার করা শিখবো, ষষ্ঠ থেকে অষ্টম শ্রেনীর শিক্ষার্থীদের জন্য : কীভাবে আমরা শিক্ষার জন্য মোবাইল ব্যবহার করবো,  নবম ও দশম শ্রেনীর শিক্ষার্থীদের জন্য : বৈশ্বিক উষ্ণতারোধে ইন্টারনেট কীভাবে সহায়তা করতে পারে এবং একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেনীর শিক্ষাথীদের জন্য : ইন্টারনেটে সামাজিক যোগাযোগের সাইটের বৃদ্ধি সমাজের জন্য আশীর্বাদ না কি অভিশাপযেহেতু এটি একটি আন্তর্জাতিক প্রতিযোগিতা সে জন্য প্রতিযোগীদের অবশ্যই ইংরেজিতে উপস্থাপনাটি তৈরি করতে হবেআগ্রহীদের ওপেন অফিস বা ওডিএফ সর্মথন করে এমন যে কোন উন্মুক্ত সফটওয়্যার দিয়ে উপস্থাপনাটি তৈরি করতে হবেসর্বোচ্চ ২১টি স্লাইডের মধ্যে উপস্থাপনাটি সম্পূর্ণ করতে হবেবাংলাদেশের শিক্ষার্থীদের তাদের উপস্থাপনা ১৫ নভেম্বর ২০০৯ তারিখের মধ্যে bangladesh@odfolympiad.org ই-মেইলে পাঠাতে হবে

শুরু হলো তথ্যপ্রযুক্তি ভিত্তিক প্রতিযোগিতা : ডট কম সিস্টেমস চ্যালেঞ্জার

            তথ্যপ্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান ডট কম সিস্টেমস এর আয়োজনে শুরু হয়েছে তথ্যপ্রযুক্তি ভিত্তিক প্রতিযোগিতা : ডট কম সিস্টেমস চ্যালেঞ্জার প্রতিযোগিতায় প্রথম পুরস্কার হিসাবে থাকছে একটি ল্যাপটপ কম্পিউটার কুইজ ভিত্তিক এই প্রতিযোগিতায় প্রশ্নগুলো থাকবে সমসাময়িক বিষয়, দেশ-বিদেশ খেলাধুলা বিষয়ে তবে তথ্যপ্রযুক্তির উপর জোর দেয়া হবে বেশি ডট কম সিস্টেমসের চেয়ারম্যান এহসানুল হক সেলিম বলেন, ধরনের প্রতিযোগিতা প্রতি বছর আয়োজনের পরিকল্পনা আছে তাদের

            তিনি জানান শুধুমাত্র গ্র্যাজুয়েট, অনার্স মাস্টার্স পর্যায়ের এবং সদ্য পাশ করা শিক্ষার্থীরা প্রতিযোগিতায় অংশ নিতে পারবে

বাংলাদেশে চ্যানেল ডিস্ট্রিবিউশন পার্টনারশিপ বাড়াতে জেরক্সের নতুন উদ্যোগ

            জেরক্স সাউথ এশিয়ান অপারেশন এবং এর বাংলাদেশী পার্টনার ইন্টারন্যাশনাল অফিস ইক্যুইপমেন্ট (আইওই) দেশের শীর্ষস্থানীয় তথ্যপ্রযুক্তি রিসেলারদের সাথে ব্যবসায়িক সম্পর্ক জোরদার করা এবং বাংলাদেশে জেরক্স্রের ¯^Zš¿ এজেন্টদের নেটওয়ার্ক আরও সমপ্রসারনের লক্ষ্যে পরিবেশকদের উজ্জীবিত করতে সমপ্রতি জেরক্স-ইনোভেশন ফর বিজনেস নামে এক অনুষ্ঠানের আয়োজন করেগ্রাহকদের উন্নততর সেবা প্রদান, সেলস পার্টনারদের জন্য নতুন ব্যবসায়িক সুযোগ অনুসন্ধান এবং ছোট ও মাঝারি আকৃতির ব্যবসার (এসএমবি) বড় একটি অংশ নিজেদের আয়ত্বে নিয়ে আসার একটি বৃহৎ উদ্যোগের অংশ হিসেবে এই অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়

            অনুষ্ঠানে রিসেলারদের ডকুমেন্ট ম্যানেজমেন্ট টেকনোলজি, অ্যাডভান্সড সলিউশন্স, সফটওয়্যার এবং সার্ভিস বিষয়ে দক্ষ করে তুলতে বেশকিছু উদ্যোগ নেয়ার কথা জানানো হয়এরই সাথে জেরক্স নতুন নতুন উপাদান যেমন উন্নততর মার্কেটিং কৌশল, প্রশিক্ষণ এবং সহযোগিতা বৃদ্ধির মাধ্যমে তার চ্যানেল এজেন্টদের আরো সমৃদ্ধ করে তুলবে

            আইওই এর প্রধান নির্বাহী আফতাব উল ইসলাম এ সময় বলেন, এদেশে ডিস্ট্রিবিউশন চ্যানেল শুরুর পর থেকেই আমরা রিসেলার এবং এজেন্ট পার্টনারশিপে ব্যাপক বিনিয়োগ করে আসছি তিনি বলেন, ডিস্ট্রিবিউশন পার্টনারশিপের ভিত্তি মজবুত হলে আগামীতে আমরা আরো বেশি পণ্য ক্রয় সিদ্ধান্তে অংশগ্রহণ করতে পারবো এবং পার্টনাররা তাদের ব্যবসায় জেরক্স ব্র্যান্ডকে অতীতের চাইতে অনেক বেশি প্রতিষ্ঠিত করতে পারবেআমরা মনে করি- ব্যবসায়িক লক্ষ্য অর্জনের জন্য যেসব এজেন্ট, রিসেলার এবং গ্রাহকের ডকুমেন্ট সলিউশন্স প্রয়োজন তাদের জেরক্সকে পার্টনার হিসেবে বেছে নেওয়া প্রয়োজন জেরক্স সাউথ এশিয়া অপারেশন্স এর ইন্টারন্যাশনাল বিজনেস ম্যানেজার চন্দ্রনাথ সিং অনুষ্ঠানে জেরক্স উদ্ভাবনী ও বৈশ্বিক কৌশল সম্পর্কে আলোচনা করেন

কম্পিউটার সোর্স বাংলাদেশে ডেল পণ্যের ডিস্ট্রিবিউটর হিসেবে কাজ করবে

            এখন থেকে বাংলাদেশে ডেল পণ্যের অথরাইজড ডিস্ট্রিবিউটর হিসেবে কম্পিউটার সোর্স কাজ করবে স্থানীয় একটি হোটেলে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানানো হয়এ সময় জানানো হয় দেশের প্রত্যন্ত অঞ্চল পর্যন্ত বিস্তৃত ডিস্ট্রিবিউশন নেটওয়ার্ক ও আন্তর্জাতিক সার্ভিস সুবিধার মাধ্যমে কম্পিউটার সোর্স ডেল ব্রান্ডের সব পণ্যের বিপনন এবং সার্ভিস নিশ্চিত করবেকম্পিউটার সোর্স এখন থেকে ডেল ইনস্পাইরন, স্টুডিও, স্টুডিও এক্সপিএস, ভস্ত্রো সিরিজের নোটবুক ও ডেস্কটপ, এলসিডি মনিটর, প্রজেক্টর এবং বিভিন্ন কম্পিউটার পণ্য বাজারজাত করবে

ডেল দক্ষিণ এশিয়ার এমার্জিং মার্কেট ডিরেক্টর প্রসেনজিৎ সরকার এ সময় বলেন, আমরা বিশ্বাস করি কম্পিউটার সোর্স এর সাথে আমাদের এই নতুন বন্ধন খুবই সময়োপযোগী সিদ্ধান্তকম্পিউটার সোর্স এর আছে শক্তিশালী এবং ক্রমবর্ধিত রিটেইলার চ্যানেল এবং ডেল দিচ্ছে সর্বোচ্চ মানের পারসোনাল কম্পিউটার এর সুবিশাল পণ্য সম্ভারকম্পিউটার সোর্সকে আমরা বিজনেস পার্টনার হিসাবে পাওয়ায় বাংলাদেশের ক্রেতা সাধারনের আরো কাছে যাওয়া সহজতর হয়েছে এবং আমাদের বর্ধিত পণ্য তালিকায় উন্নততর সেবামান নিশ্চিত করা গেছে কম্পিউটার সোর্স এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক এ.এইচ.এম. মাহফুজুল আরিফ বলেন, তথ্যপ্রযুক্তিতে শীর্ষ ব্র্যান্ড ডেল এর সাথে হাতে হাত মিলিয়ে কাজ করতে পেরে আমরা সত্যিই গর্বিত এবং আনন্দিত কম্পিউটার সোর্সের পরিচালক আসিফ মাহমুদ এ সময় বাংলাদেশে ডেল কম্পিউটার পণ্যের মার্কেট এবং এই বিষয়ে কম্পিউটার সোর্স এর ভবিষ্যৎ কর্মপরিকল্পনা বিষয়ে বিস্তারিত তুলে ধরেন

 

মন্তব্য:
এ সপ্তাহের জরীপ

প্রেসিডেন্ট ওবামা ঠিকমত দেশ চালা্চ্ছেন।

 
Code of Conduct | Advertisement Policy | Press Release | Hard Copy Archive
© Copyright 2001 Porshi. All rights reserved.